পেঁয়াজ অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এমপিদের বিক্ষোভ।

পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির সংসদ চত্বরে দেশটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের এমপি’রা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। বৃহস্পতিবার তারা মুদ্রাস্ফীতিতে পেঁয়াজের মার, নীরব কেন মোদি সরকার, কি রকম এই মোদি রাজ, ব্যয়বহুল রেশন, দামি পেঁয়াজ লেখা ও পেঁয়াজের ছবি সম্বলিত পোস্টার প্রদর্শনসহ কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন। এ সময় কংগ্রেসের এমপি’রা ঝুড়িতে ও হাতে পেঁয়াজ নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি কমাতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার তুরস্ক থেকে ১১ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা এমএমটিসি’র মাধ্যমে এ সংক্রান্ত অর্ডার দেয়া হয়েছে। সম্প্রতি দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা বিদেশ থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমোদন দিয়েছে।

এর আগে, মিসর থেকে ৬ হাজার ৯০ টন পেঁয়াজ কেনার চুক্তি হয়েছিল। চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে সেই পেঁয়াজ দিল্লিতে পৌঁছার কথা রয়েছে। এদিকে, পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকার সম্পূর্ণ দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি সুখেন্দু শেখর রায়। বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন তিনি। সুখেন্দু শেখর রায় বলেন, মহারাষ্ট্রের পেঁয়াজ চাষিরা যেখানে ৮ থেকে ১০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে, সেখানে সাড়া দেশে এরকম ১০০ টাকা দেড়শ’ টাকা কেজি পেঁয়াজের দাম! আমার কাছে খবর আছে এবং খবরের কাগজেও বেরিয়েছে যে মালদহ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রচুর পেঁয়াজ যাচ্ছে।তাঁদের নাকি রফতানির সমস্ত কাগজপত্র থাকায় পুলিশ কিছু করতেও পারছে না। সুখেন্দু শেখর বলেন, এই সরকার চোরাকারবারিদের প্রশ্রয় দিচ্ছে, মজুতদারদের প্রশ্রয় দিচ্ছে বলে আজকে দেশে পেঁয়াজের এই অবস্থা। এর বিরুদ্ধে সব রাজনৈতিক দলকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিবাদ করা প্রয়োজন বলেও সুখেন্দু শেখর রায় মন্তব্য করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *